ওজন কমাতে লেবু পানি খাওয়ার উপকারিতা

বর্তমান সময়ের আমাদের শরীরের ওজন বাড়া নিয়ে অনেকেই দুশ্চিন্তায় ভোগে। বিভিন্ন কারণে আমাদের শরীরের ওজন বেড়ে যায়। এজন্য আমরা খুব সহজেই এবং কম সময়ে ওজন কমাতে চাই। এক্ষেত্রে আমাদের অনেকের নিকট কুসুম গরম পানিতে লেবু মিশিয়ে পানি পান করা পদ্ধতি একটু খুবই জনপ্রিয় পদ্ধতি বলা যেতে পারে। এছাড়া আমরা অনেকেই জানি ঘুম থেকে ওঠার সাথে সাথেই এক গ্লাস লেবুর পানি মিশ্রিত শরবত আমাদের শরীরের জন্য বিভিন্ন উপকারে আসে। এই লেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি যা আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়। লেবু সাইট্রাস জাতীয় ফল। এটি একটি অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট বলা যেতে পারে। আমাদের শরীরের বাড়তি ওজন কমাতে সাহায্য করে থাকে এটি। কিন্তু এভাবে লেবু মিশ্রিত পানি আসলে কি আমাদের শরীরের ওজন কমিয়ে থাকে?

ওজন কমাতে লেবু পানি খাওয়ার উপকারিতা
ওজন কমাতে লেবু পানি খাওয়ার উপকারিতা

যারা শরীরের বাড়তি ওজন কমাতে চান তারা সকালে কফি বা চা এর পরিবর্তে কুসুম কুসুম গরম পানিতে লেবুর রস মিশিয়ে শরবত টি পান করতে পারেন। এটি আপনার খাবারের হজম করতে সাহায্য করবে। এছাড়া আপনি খালি পেটে লেবু পানি পান করলে তুলনামূলকভাবে ক্ষুধাও কম লাগবে। এর ফলে আপনার খাবার গ্রহণের প্রবণতা কম থাকবে। এভাবে আপনার শরীরের ক্যালরির পরিমাণ সঠিক থাকবে। লেবু মিশ্র তো পানি পান করার মাধ্যমে আপনার অতিরিক্ত ক্যালরি ক্ষয় হতে থাকবে সেই সাথে আপনার শরীরের বাড়তি ওজন কমবে।

লেবু পানি খাওয়ার উপকারিতা:

  • লেবুতে রয়েছে ভিটামিন সি যা এন্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। এর ফলে লেবুর রস মিশ্রিত পানি পান করলে আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়।
  • লেবুর রস মিশ্রিত পানি আমাদের শরীরকে হাইড্রেট রাখতে সাহায্য করে থাকে।
  • সকালবেলায় লেবুর রস পানি পান করলে আমাদের হজম শক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে। সেইসাথে আমাদের কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা দূর করবে।
  • লেবুর রস মিশ্রিত পানি আমাদের ভিটামিন সি এর অভাব পূরণ করে।
  • লেবুর পানি পান করার মাধ্যমে আমাদের ত্বক এর উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি পাবে।
  • লেবুর রস মিশ্রিত পানি নিয়মিত পান করার মাধ্যমে আমাদের কিডনিতে পাথর হওয়া থেকে রক্ষা করবে।
  • লেবুর রস মিশ্রিত পানি আমাদের শুওরের এমন মনকে সতেজ রাখতে সাহায্য করে থাকে।
  • লেবু পানিও আমাদের শরীরের মেটাবলিজম বৃদ্ধি করে দেবে।
  • আমাদের শরীরের অতিরিক্ত ফ্যাট কমাতে সাহায্য করে থাকে লেবু পানীয়।
  • লেবু পানিও পান করার মাধ্যমে আমাদের বিপাকক্রিয়াতে সহায়তা করে থাকে।
  • লেবু পানিয়ন পান করার মাধ্যমে খোদা কমাতে আমাদের সাহায্য করে থাকে।

লেবু পানীয় যেভাবে পান করবেন:

  • সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর খাওয়ার আধা ঘন্টা পূর্বে লেবু পানি পান করার চেষ্টা করুন। কফি বা চা এর পরিবর্তে লেবু পানিও পান করার অভ্যাস করো। সে সাথে এটি আমাদের পারমিশূন্যতা দূর করবে। তবে মনে রাখতে হবে দিনে দুবারের বেশি লেবু পানীয় পান করতে যাবেন না।
  • লেবুর রসের সাথে কিছুটা মধু মিশিয়ে খেতে পারে এতে করে আপনার ক্ষুধা মন্দা কম হবে।

যে ক্ষেত্রে লেবু পানি পানীয় পান করতে পারবেন না:

  • লেবুতে রয়েছে সাইট্রিক এসিড। আমাদের যাদের গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা রয়েছে তারা লেবু পানি পান করলে এর সমস্যা বেড়ে যেতে পারে। যদি আপনার লেবু পানি পান করার কারণে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা বেড়ে যায় তাহলে এটি পান করা বন্ধ করতে হবে এবং একজন চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে.
  • লেবুতে ভিটামিন সি এর পরিমাণ বেশি থাকার কারণে আপনার দাঁতের এনামেলের ক্ষতি হতে পারে। এজন্য লেবু পানি পান করার পর ভালোভাবে আপনার মুখ পরিষ্কার করে নিতে হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top