পেটের চর্বি কমাতে এ নিয়ম গুলো মেনে চলুন

আপনাদের যাদের পেটের চর্বি আছে তাদের জন্য একটি বিরক্তকর বিষয় হচ্ছে পেটের চর্বি। অতিরিক্ত চর্বিযুক্ত খাবার আপনার পেটের চর্বি বাড়ায় শুধু তাই নয় বেশি ক্যালরিযুক্ত যেকোনো খাদ্যই আমাদের পেটের মেদ বাড়াতে সাহায্য করে থাকে। আমাদের অনেকের ধারণা একবার পেটে মেদ জমে গেলে সেটা কাটিয়ে ওঠা যাবে না- এমন একটি ভুল ধারণা রয়েছে। স্বাস্থ্যকর জীবন ধারণের মাধ্যমে সহজেই পেটের চর্বি কমিয়ে ফেলা সম্ভব।

এর আগে আমাদের জানতে হবে কোন ধরনের খাবারের কারণে আমাদের পেটে চর্বির জমে থাকে। যে সকল খাবার মধ্যে পান মিষ্টি জাতীয় খাবার কোমল পানীয় লাল মাংস ইত্যাদি খাবার গ্রহণের মাধ্যমে আমাদের পেটের চর্বি বাড়িয়ে তোলার পেছনে ভূমিকা পালন করে থাকে।

এ গবেষণায় দেখা গেছে যে এ কয়েক তেল বারবার ব্যবহার করা হয় সেই তেল তখন ট্রান্স ফ্যাট উৎপন্ন হয় এই তেল থেকে। ট্রান্সফ্যাট আমাদের পেটের চর্বি বাড়িয়ে দেয়। পেটের চর্বি অতিরিক্ত জমে যাওয়ার হওয়ার আগেই সেটিকে নিয়ন্ত্রণ এ আনা উচিত।

আমরা আর নিয়ন্ত্রিত সঠিক জীবন যাপন এবং খাদ্যাভ্যাসের মাধ্যমে চোরের বাড়তি চর্বি কমিয়ে এনে সুস্থভাবে জীবন যাপন করতে পারি।

শরীরচর্চা করে বা ডায়েট করেও ওজন কমলেও পেটের মেদ কমানো যায় না খুব সহজেই। পেটের চর্বি কমাতে অনেক পরিশ্রম করতে হয়। সারাদিন না খেয়ে অথবা জিমি গিয়ে ঘামঝালেও চর্বি কমতে চায়না। এছাড়াও পেটের বাড়তি চর্বি অনেক সময় আমাদের চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। আবার অনেক সময় আমাদের সতর্ক থেকেও কিছু করা যায় না। পেটের মেদক্রমে বাড়তে থাকে। আবার অনেকে পেটের চর্বি কমাতে শারীরিক চর্চাও করে থাকেন।

পেটের চর্বি কমাতে এ নিয়ম গুলো মেনে চলুন
পেটের চর্বি কমাতে এ নিয়ম গুলো মেনে চলুন

পেটের চর্বি কমাতে আমাদের প্রয়োজন পরে ধৈর্য আর শারীরিক কিছু ব্যায়াম। পরিশ্রম করার পাশাপাশি সারাদিনে কাজের ফাঁকে কিছু কৌশল অবলম্বন করতে হয়। এতেই আমাদের পেটের চর্বি কমে যাবে। তাই আসুন জেনে নেই পেটের চর্বি কমানোর কয়েকটি সহজ উপায়।

পানি

পেটের চর্বি কমাতে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করতে হবে। পানি শরীরের নানা অসুস্থতা থেকে আমাদেরকে নিরাপদ রাখে। পানি স্বল্পতার কারণে মাথাব্যথা থেকে শুরু করে নানান ধরনের অসুস্থতার তৈরি হইতে পারে বা হয়ে থাকে। পানি পান করার মাধ্যমে এই সকল অসুস্থ থেকে মিলবে পাশাপাশি।

ধূমপান ত্যাগ

ধূমপান পেটের চর্বি বৃদ্ধির ঝুঁকি বাড়ায়। তাই, ধূমপান ত্যাগ করুন।

মরিচ

ক্যাপসাইসিন নামের এক ধরনের উপাদান রয়েছে এ কাঁচা মরিচের মাঝে। যা আপনার শরীরকে সুঠাম করতে খুবই উপকারী। এই মরিচের ঝালজাম বাড়িয়ে দেয় এবং নিজে থেকেই ক্যালোরি তৈরি করে। রান্না করা বা কাঁচা অবস্থায় যেভাবে খেতে পারেন। আর তাই ঝাল যুক্ত খাবার কমাতে পারে আপনার ওজন এবং চর্বি।

গ্রিন চা

গ্রিন টিতে রয়েছে এন্টিঅক্সিডেন্টসহ এমন কিছু পোস্টি গুনাগুন যা চর্বিক কমাতে এবং পাশাপাশি স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে থাকে। ক্যান্সারের ঝুকি কমিয়ে থাকে। আপনি যদি নিয়মিত গ্রিন টি পান করেন তাহলে আপনার ওজন কমতে সাহায্য করবে।

আদা চা

এই আদা আমাদের হজমের সাহায্যে বেশ কার্যকরী একটি মসলা। আদ আচার যেমন সারা দিনের ধৈর্য প্রেম প্রশান্তি দেবে ঠিক তেমনি দোষ-সচিন্তারজনিত কারণেও ওজন কমাতে সাহায্য করে থাকে।

সাগুদানা

আপনি যদি নিরামিষ ভোজী হন তাহলে ওমেগা-৩ নিয়ে একদমই আপনাকে চিন্তা করতে হবে না। এতে রয়েছে ওমেগা-৩ যা আমাদের ওজন কমাতে সাহায্য করে থাকে। এই সাগুদানাতে রয়েছে ক্যালসিয়াম , অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, প্রচুর পরিমাণে ফাইবার এবং লোহা।

পর্যাপ্ত ঘুম

প্রতিদিন ৭-৮ ঘণ্টা ঘুমানোর চেষ্টা করুন।

দারুচিনি

দারুচিনি মেটাবোলিজম বাড়িয়ে শরীরের চর্বি কমাতে খুবই কার্যকরী। তাছাড়া এই দারুচিনি আমাদের শরীরে শর করার মাত্রা কমিয়ে দেয় যে কারণে আমাদের ডায়াবেটিসের ঝুঁকি কোন কমিয়ে আনে পাশাপাশি চর্বি কমিয়ে আনে।

সোজা হয়ে বসা

আমরা বেশিরভাগ সময় সোজা হয়ে বসি না। এমন ভাবে বসতে হবে যেন পেটের পেশিগুলো ঝুলে থাকে। এবং খেয়াল রাখতে হবে শিরদাঁড়া যেন সোজা থাকে। এতে করে চর্বি জমতে পারবে না।

পেটের ব্যায়াম করা

আমাদের পেটের চর্বি কমাতে পেটের ব্যায়াম করতে হবে। প্ল্যান করা আমাদের খুবই প্রয়োজন। আমাদের পেটের মাংসগুলো ট্রেন্ড করে টানটান করার জন্য পেটের ব্যায়ামের বিকল্প নেই।

মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণ

মানসিক চাপ পেটের চর্বি বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখে। তাই, ধ্যান, যোগব্যায়াম, ইত্যাদি মাধ্যমে মানসিক চাপ নিয়ন্ত্রণ করুন।

মনে রাখবেন:

  • নিয়মিত ব্যায়াম এবং স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসের মাধ্যমে আপনি অবশ্যই পেটের চর্বি কমাতে পারবেন।
  • পেটের চর্বি কমাতে দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা এবং ধৈর্য্য প্রয়োজন।
  • প্রয়োজনে একজন চিকিৎসকের বা পুষ্টিবিদের পরামর্শ নিতে হবে।

উপরের এই নিয়মগুলো মেনে চললে আপনি পেটের চর্বি কমাতে এবং সুস্থ জীবনযাপন করতে পারবেন। সুস্থতায় আমাদের কাম্য।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top