মেছতা কেন হয় ও দূর করার উপায়

মেছতা এক ধরনের চর্ম রোগ। “মেছতা” মেলাসমা নামেও পরিচিত, ত্বকের একটি সাধারণ সমস্যা যা মুখের ত্বকে বাদামী বা কালচে দাগের কারণ হতে পারে। মেলা সময় হলে থুতনি মুখ কপালে এবং গালে হালকা বাদামি কালো বা লালচে দাগ দেখা যায়। এটি নারীদের বেশি হয়ে থাকে। বিশেষ করে যে নারীর বয়স ৪০ এর বেশি তাদের এ সমস্যাটি বেশি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। একটি মুখ ছাড়াও অন্যান্য অঙ্গে দাগ দেখাতে পারে। এটি ত্বকের নির্দিষ্ট কিছু অংশে অতিরিক্ত মেলানিন জমা হওয়ার ফলে হয়। মেলানিন ত্বকের রঙের জন্য দায়ী। ত্বকে মূলত রঞ্জক পদার্থ মেলানের পরিমাণ বেড়ে যায় এর কারণে। সময় যত গড়িয়ে যায় এই ডাকটি আরো বেশি গাড়া হতে থাকে এবং রোগীর জন্য একটি দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

মেছতা কেন হয়?

সন্তান গর্ভে আসার পর থেকে হরমোনের প্রভাবে অনেকের এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। এইজন্য গর্ভবতী কে বলা অনেকে বলেন মাস্ক অফ প্রেগনেন্সি। এছাড়াও অতিরিক্ত সূর্যালোকের জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি এবং বংশগতির প্রভাবে মেছতা হওয়ার ঝুঁকি বেড়ে যায়। আবার অনেকের হরমোনের সমস্যা থাকার কারণে মেছতা হতে পারে যেমন থাইরয়েড বা ডিম্বাশয় সমস্যা থাকলে। এর অনেকের আবার মেনোপজের অর্থাৎ মাসিক বন্ধ হওয়ার পর থেকে এটি দেখা দেয় এর পেছনেও হরমোনের প্রভাব রয়েছে। আবার অতিরিক্ত মুখমণ্ডলে প্রসাধনির ব্যবহার কারণেও মেছতা হতে পারে। চিকিৎসকরা এটি মেলা জমা কসমেটিকা নামে অবহিত করে থাকেন। আবার অনেকের যকৃতের জটিলতার কারণে ব্যস্ত হয়ে থাকে। এটি কে চিকিৎসকের ভাষায় বলা হয় মেলা জমা হেপাটিকা।

তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই মেছতার কোন কারণ খুঁজে পাওয়া যায় না সূর্যের আলোটা ভায়োলেট রসের প্রভাব বংশগত কারণ গর্ভধারণ হরমোন জনিত হয়ে থাকতে পারে।

যারা উচ্চ রক্তচাপের ঔষধ ডায়াবেটিসের ওষুধ অথবা বিভিন্ন ধরনের ওষুধের পার্শ্বপ্রতিকাতেও অনেক সময় এই সমস্যা হতে পারে।

ব্যক্তার চিকিৎসায় সম্পূর্ণরূপে ভালো হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। কিন্তু আপনি কিছু উপায় এর মাধ্যমে আপনার মেছতার দাগ ধীরে ধীরে কমিয়ে আনতে পারেন। এর পেছনে সময় দিতে হবে এবং ধৈর্য ধরে নিচের উপায় গুলো অনুসরণ করতে হবে।

মেছতা কেন হয় ও দূর করার উপায়
মেছতা কেন হয় ও দূর করার উপায়

মেসতা দূর করার উপায়

টক দই

মেসতা দূর করতে টক দইয়ের ব্যবহারের খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সামান্য পরিমাণে টক দই ফেটিয়ে নিয়ে মুখে ভালোভাবে লাগিয়ে নেবেন এরপর ১৫ থেকে ২০ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এভাবে নিয়মিত টক দই এর ব্যবহার করে মেছতা দূর করতে পারবেন এবং তোকে উজ্জ্বলতা বারাতে  করতে পারবেন।

লেবুর রস

কখনো হই লেবুর রস সরাসরি মুখে ত্বকে লাগাবেন না। লেবুর রসের সাথে অন্য কিছু মিশ্রণ করে ব্যবহার করতে পারেন। এজন্য আপনি পানির সাথে লেবুর রস মিশিয়ে নিয়ে মুখের ত্বকে লাগাতে পারেন। লেবুর রস এবং পানি মিশ্রিত মিশ্রণটি মুখের ত্বকে লাগিয়ে ১৫ মিনিটের মত লাগিয়ে রাখুন। লেবুর রসের রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট নামক উপাদান। এটি সূর্যের আলো ক্ষতিকর রশ্মি থেকে আপনাকে বাঁচাতে সাহায্য করে থাকে।

কলার খোসা

কলার খোসার ভিতরের অংশটি নিয়েছ তার জায়গায় তিন থেকে চার মিনিট ঘষুন। এরপর কলার খোসা অংশগুলো ত্বকের শুখিয়ে নেওয়ার আগ পর্যন্ত রেখে দিন। প্রতিদিন একবার করে এই কলার খোসা ব্যবহার করতে পারেন।

হালকা গরম তেল ব্যবহার

মুখের ত্বকে ব্যবহার উপযোগী যে কোন তেল হালকা গরম করে মুখে লাগাতে পারেন। যতক্ষণ না মুখে তেল লাগিয়ে চুষে নেয় সে পর্যন্ত মুখে ঘষতে থাকুন। এভাবে লাগিয়ে এক ঘন্টার মত রেখে দেন। এরপর আপনি হালকা গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এভাবে নিয়মিত ব্যবহার করলে মেছতা দূর হয়ে যাবে।

সানস্ক্রিন

আমাদের মাঝে অনেকেই এই সানস্ক্রিন ব্যবহারের গুরুত্ব বুঝতে পারেন না। এই সানস্ক্রিন আপনাকে সূর্যের অতি রস্মি থেকে রক্ষা করতে পারেন। ফোনে যখন বাইরে বের হবেন বিশেষ করে রোদে যাওয়ার পূর্বে এটি আপনি ব্যবহার করতে পারেন এবং সেই সাথে আপনি ছাতা, মাস্ক, এবং সানগ্লাস ব্যবহার করতে পারেন।

এলোভেরা

এলোভেরা নিয়ে পনের থেকে বিশ মিনিট মেসেজ করতে থাকুন এবং এরপর মুখ ধুয়ে ফেলুন। এই অ্যালোভেরার জেল আপনি চাইলে সারারাত মুখে লাগিয়ে রাখতে পারেন।

এছাড়াও কিছু উপায় রয়েছে

  • প্রথমেই আপনাকে মেছতার কারণ খুঁজে বের করতে হবে। কোন ঔষধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার মাধ্যমে হলে সে ওষুধ বন্ধ করতে হবে অথবা আপনাকে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। এছাড়াও এই সমস্যাটি হরমোন জনিত সমস্যা হলেও একজন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে হবে।
  • মেসতার দাগ দূর করতে ইচ্ছে করছে পরামর্শ অনুযায়ী ডিমেলামাইজিং ব্যবহার করতে পারেন। তবে দাগ অনেক বেশি হলে লেজার ট্রিটমেন্ট নিতে পারেন।
  • পাতি লেবুর রসের চিনি মিশিয়ে মেস্তর দাগের ওপর হালকা করে ঘষতে হবে যতক্ষণ না চিনির দানা গুলো গোলে না যায়। এ পদ্ধতিতে মেসতার দাগ কিছুটা হলেও দূর করা যায়।
  • আপনি যদি সরাসরি সূর্যের আলোর প্রভাব থেকে নিজের শরীরকে মুক্ত রাখতে পারেন তাহলে মেছতা থেকেও মুক্তি পেতে পারেন। রোদে গেলে আপনার ত্বক ঢেকে রাখতে হবে। অথবা আপনি ভালো মানের সানস্ক্রিন ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন।

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top